RSS

৮০ খণ্ডে প্রকাশিত হচ্ছে ‘কালানুক্রমিক রবীন্দ্র রচনাবলী’

10 আগস্ট

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সিলমোহর, ‘কালানুক্রমিক রবীন্দ্র রচনাবলী’র প্রচ্ছদ থেকে।

গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্ম-সার্ধশতবর্ষ উপলক্ষ্যে বিশ্বভারতী গ্রন্থনবিভাগ কবির যাবতীয় রচনা মূল খসড়া ও পাঠান্তর সহ কালানুক্রমে প্রকাশের একটি বিরাট প্রকল্প গ্রহণ করেছে। সম্ভাব্য ৮০ খণ্ডে প্রকাশিতব্য এই গ্রন্থমালার নাম রাখা হয়েছে ‘কালানুক্রমিক রবীন্দ্র রচনাবলী’। ২০১১ সালের ৮ অগস্ট (বাংলা ২২ শ্রাবণ, ১৪১৮) এই গ্রন্থমালার প্রথম চারটি খণ্ড আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশিত হল।

রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞ তথা এই প্রকল্পের সম্পাদক গৌতম ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, “প্রতিটি প্রকাশিত গ্রন্থ সম্পর্কে অনেক গবেষণা করা হয়েছে। শান্তিনিকেতনের রবীন্দ্রভবনের গবেষকরা প্রতিটি কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ, উপন্যাস ও নাটকের মূল খসড়াগুলি অনুসন্ধান তো করেইছেন, সেই সঙ্গে ‘তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা’, ‘ভারতী’, ‘গদ্য জ্ঞানাঙ্কুর’ প্রভৃতি পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত পাঠগুলিও দেখেছেন।” শুধু তাই নয়, পরবর্তীকালে রবীন্দ্রনাথ কতভাবে তাঁর রচনাগুলি সংশোধন-পরিমার্জন করেছেন, তারও হদিস রয়েছে এই সংস্করণে।

এই সংস্করণে রবীন্দ্রনাথের এমন কিছু রচনা সংকলিত হয়েছে যা অদ্যাবধি গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়নি। ‘কালানুক্রমিক রবীন্দ্র রচনাবলী’র সম্পাদকগণ মনে করছেন, রবীন্দ্রনাথের নিয়মিত লেখালিখির সূত্রপাত ১২৮০ বঙ্গাব্দে। কবির বয়স তখন এগারো। সেই বয়সে লেখা রবীন্দ্রনাথের কয়েকটি কবিতা ও গদ্যরচনা, যা রবীন্দ্র রচনাবলীর পূর্ববর্তী সংস্করণের অন্তর্ভুক্ত হয়নি, তা এই রচনাবলীতে প্রকাশিত হয়েছে।

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ঐতিহাসিক রজতকান্ত রায় বলেছেন, “রবীন্দ্রনাথের প্রথম প্রকাশিত রচনা সম্ভবত ‘ভারতে জ্যোতিষ শাস্ত্র’। এই প্রবন্ধমালার কথা লোকে জানেই না। আমাদের কালানুক্রমিক প্রকল্প শুরু হয়েছে এই রচনাটির মাধ্যমেই। ভারতীয় জ্যোতিষ সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথের ব্যাখ্যা পড়লে আপনারা আশ্চর্য হয়ে যাবেন। এই সময়েই রবীন্দ্রনাথের বাবা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ তাঁকে কুসংস্কার ও জ্যোতিষ সম্পর্কে অবহিত করেছিলেন।”

একটি উদাহরণের মাধ্যমে ‘কালানুক্রমিক রবীন্দ্র রচনাবলী’র গুরুত্ব অনুধাবন করবেন পাঠকেরা। রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত ‘নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গে’র প্রথম পাঠটি সংকলিত হয়েছে এই বইতে। পাঠক আশ্চর্য হবেন মূল খসড়াতে কবিতাটি রূপ কতখানি ভিন্ন ছিল তা দেখে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী’ রচিত হয়েছে বহু-শতাব্দী প্রাচীন ব্রজবুলি ভাষায়। এই কবিতাবলীর অনেক শব্দের মানে আজ আমাদের জানা নেই। সেই সব শব্দার্থও দেওয়া হয়েছে এই গ্রন্থমালায়।

‘অভিনব’ এই রবীন্দ্র-রচনা সংকলনের প্রকাশিত প্রথম চারটি খণ্ডে সংকলিত হয়েছে ১২৮০-১২৯০ সময়কালের মধ্যে রচিত রবীন্দ্রনাথের যাবতীয় রচনা। একত্রে চার খণ্ডের দাম ধার্য করা হয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় ২৫০০ টাকা।

 

ট্যাগ সমুহঃ

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

 
%d bloggers like this: